সূত্রঃ Wage Earners Welfare Board

বিদেশগামী কর্মীদের বাধ্যতামূলক বীমা করতে হবে

বিদেশগামি অথবা বিদেশে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের অধিকতর সুরক্ষার বিষয় বিবেচনা করে বাধ্যতামূলক ভাবে বীমা ব্যবস্থা চালু করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অত্র মন্ত্রণালয় সহ অন্যান সহযোগী অংশীজনের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে বীমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ কর্তৃক একটি জীবন বীমা নীতি প্রণয়ন করেছেন. উক্ত নীতিমালা অনুযায়ী বাংলাদেশী কর্মীদের জন্য নিচের ২টি জীবন বীমার ব্যবস্থা করা হয়েছে.

ক: পরিকল্প-১ - প্রবাসী কর্মীর বয়স ১৮ থেকে ৫৮ বছরের মধ্যে হতে হবে -বীমার মেয়াদ ২ বছর - বীমা অংক ২০০০০০ (দুই লক্ষ টাকা ) - প্রদেয় প্রিমিয়াম ৯৯০ (নয়শত নব্বই টাকা )
খ : পরিকল্প-২ - প্রবাসী কর্মীর বয়স ১৮ থেকে ৫৮ বছরের মধ্যে হতে হবে -বীমার মেয়াদ ২ বছর - বীমা অংক ৫০০০০০ (পাঁচ লক্ষ টাকা ) - প্রদেয় প্রিমিয়াম ২৪৭৫ (দুই হাজার চারশত পঁচাত্তর টাকা )
সকল বিদেশগামী অথবা বিদেশে অবস্থানরত কর্মীর জন্য বীমা করা বাধ্যতামূলক| তবে একজন ব্যক্তি পরিকল্প-১ অথবা পরিকল্প-২ এর মধ্যে যেকোনো একটি পলিসি কিনতে পারবেন. তবে সরকারের পক্ষথেকে প্রবাসী কর্মীদের কল্যান তহবিল থেকে পলিসি কেনার জন্য প্রত্যেকজনকে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে.

তাই পরিকল্প-১ কেনার জন্য একজন কর্মীকে প্রদান করতে হবে মাত্র (৯৯০ - ৫০০ )= ৪৯০/= টাকা
আর পরিকল্প-২ কেনার জন্য একজন কর্মীকে প্রদান করতে হবে মাত্র (২৪৭৫ - ৫০০ )= ১৯৭৫/= টাকা
প্রাথমিক ভাবে বিমাটি ওয়েজ আর্নার্স কল্যান বোর্ডের তত্ত্বাবধায়নে জীবন বীমা কর্পোরেশনের মাধ্যমে পরিচালিত হবে.


লেখাটি ভালো লাগলে- লাইক, কমেন্ট ও শেয়ার করুন